চকরিয়ায় মারধর করায় ছেলের বিরুদ্ধে আদালতে মায়ের মামলা

চট্টগ্রাম সারাদেশ

চকরিয়া (কক্সবাজার ) প্রতিনিধি ঃ
কক্সবাজারের চকরিয়ায় বয়োবৃদ্ধা মাকে বার বার শারিরিক নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছেন তার এক পুত্র। এলাকার জনপ্রতিনিধিদের কাছে সামাজিক ন্যায় বিচার না পেয়ে নিরুপায় হয়ে গত ১৮ সেপ্টেম্বর চকরিয়া সিনিয়র জুডিসিয়্যাল ম্যাজিসট্রেট আদালতে একটি নালিশী মামলা দায়ের করেন হতভাগা মা । গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে চকরিয়া প্রেসক্লাবে এসে কান্নাজড়িত কন্ঠে (৬৫)বছরের বৃদ্ধা রোকেয়া বেগম সাংবাদিকদের বলেন, দুই ছেলে এবং এক মেয়ে রেখে তার স্বমী মো,নুর ইসলাম বার বছর আগে মারা যান । অভাব অনটনে শত কষ্ট করে তার ছেলে মেয়েদের বড় করে সংসার পাতিয়ে দিয়েছেন তিনি । তার বড় ছেলে দিনমুজুর বসতভিটা করে বসবাস করেন পাশর্^বর্তী সুরাজপুরÑমানিকপুর ইউনিয়নে । রোকেয়া বেগম বসবাস করেন তার স্বমীর রেখে যাওয়া কাকারা ইউনিয়নের পুর্বকাকারা পাহাড়তলী এলাকার বসতভিটায় । সেখানেই একই পাড়া থেকে ছোট ছেলের বিয়েও দেন তিন্ ি। জানাযায়, চকরিয়া উপজেলা কাকারা ইউনিয়নের পূর্ব কাকারা গ্রামের মৃত মো. নুর ইসলামের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৬৫) আদালতে দায়ের করা মামলায় দাবী করেন, তার স্বামী মারা যাওয়ার পূর্বে বসতভিটার জমিটি তাকে দান করে যান। দুই ছেলের মধ্যে ইসমাইল হোসেন নামের এক ছেলের সাথেই তিনি ওই বসতভিটায় বসবাস করে আসছিলেন। ছেলের শশুড়বাড়ি তাদের পার্শ্ববর্তী হওয়ায় শশুড় বাড়ির লোকজনের ইন্দনে ছেলে ইসমাইল হোসেন বিভিন্ন সময় তার স্বামীর দানকৃত জমিটি নিজের নামে লিখে দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করেন। এতে রাজি না হলে ছেলে ইসমাইল হোসেন বিভিন্ন সময় তাকে মারধর করেন।
সর্বশেষ গত ১৫ সেপ্টেম্বর মারধর করে বাড়িতে কোরবানীর গরু বিক্রি বাবত রাখা ৫০ হাজার টাকাও জোর পূর্বক ছিনিয়ে নেয় ইসমাইল। এ ব্যাপারে প্রতিবাদ করলে তাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়ারও হুমকি দেয় ছেলে ইসমাইল। ফলে নিরুপায় হয়ে আদালতের আশ্রয় নেন তিনি। এদিকে দায়ের করা মামলাটি বিজ্ঞ আদালত আমলে নিয়ে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন। ###

শেয়ার করুন